শীর্ষ সংবাদঃ

» কয়রায় ইউপি সদস্যর বিরুদ্ধে আদালতের মামলা

প্রকাশিত: 19. September. 2020 | Saturday

 

 

কামাল হোসেন কয়রা:
সরকারি ঘর দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে অর্থ আদায়ের জন্য খুলনার কয়রা উপজেলার উত্তর বেদকাশীর ২ নং (হাজতখালী) ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য পঙ্কজ কুমার মোড়লের বিরুদ্ধে স্বপ্রণোদিত হয়ে মামলা করেছেন আদালত।

“ক্ষতিগ্রস্তদের ঘর দেওয়ার প্রলোভনে টাকা আদায়” শিরোনামে দৈনিক দেশরুপান্তর প্রত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হওয়ায় ১৭ সেপ্টেম্বর কয়রা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ বুলবুল আহমেদ কর্তৃক ইস্যুকৃত ক্রিমিনাল মিসকেস নম্বর ০১/২০২০ ফৌ:কা:বি: ১৯০ (১)(সি) ধারায় আমলযোগ্য মামলার আদেশের কপি কয়রা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বরাবর প্রেরণ করা হয়েছে বলে আদালত সূত্র নিশ্চিত করেছেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, কয়রা থানাধীন উত্তর বেদকাশী ইউনিয়নের ২ নং হাজতখালী ওয়ার্ড । এলাকার ইউ , পি সদস্য পঙ্কজ কুমার মােড়ল গৃহহীনদের জন্য দুর্যোগ সহনীয় বাসগৃহ নির্মাণ প্রকল্পের ঘর দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ৩৬ টি পরিবারের নিকট হতে ৫ পাঁচ হাজার টাকা করে গ্রহন করেন । প্রতিবেদন হতে আরাে জানা যায় যে , সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইউ , পি সদস্য পঙ্কজ এর বিরুদ্ধে আনীত অভিযােগ বিষয়ে অবগত । ২ নং হাজতখালী ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য পঙ্কজ কুমার মোড়ল এর বিরুদ্ধে আনীত অভিযােগ একটি ফৌজদারী অপরাধ । বিষয়টি তদন্তপূর্বক আগামী ইং ০৬.১০.২০২০ তারিখের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা , কয়রা থানাকে নির্দেশ দেওয়া হলো।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য পঙ্কজ কুমার মোড়ল মুঠোফোনে খুলনার চোখকে বলেন, ‘একটি মহল রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে সরকারি ঘর দেওয়ার নামে অর্থ আদায় করেছি বলে মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন সংবাদ ছেপেছে। তবে আমার বিরুদ্ধে এ বিষয়ে আদালতে মামলা হয়েছে কী না, তা জানিনা।’

কয়রা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গৌতম মন্ডল জানান, সরকারি ঘর দেওয়ার নামে অর্থ আদায়ে ইউপি সদস্যর  বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণে ইস্যুকৃত আদালতের আদেশটি  হাতে পেয়েছি। বিষয়টি তদন্তধীন রয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ১৪৩২ বার

error: Content is protected !!